written by | October 11, 2021

স্ন্যাক্স ব্যবসা

অনলাইন স্নাক্স ব্যাবসা প্যাকেজিং এর জন্যে একটি সম্পূর্ণ গাইড

 

ইন্টার নেটের সাহায্যে বিভিন্ন রকম ব্যবসা এখন ভীষণ ট্রেন্ডশুধুমাত্র নিজেদের দক্ষতা আর বুদ্ধিদীপ্ত শ্রম কে কাজে লাগিয়ে যে অনেকদূর যাওয়া যেতে পারে তার বহু দৃষ্টান্ত আমরা দেখেছি আর ইন্টারনেটের সাহায্যে নিত্য নতুন ব্যবসা এখন এই নতুন জেনেরেশনের কাছে বেশ লাভজনক অল্প কিছু মূলধন জোগাড় করেই নেমে পড়া যায় এই ব্যাবসায় হাতের মুঠোফোন তো থাকলেই তোমার সময় আর একটু জ্ঞান দিয়ে কাজে লেগে পড়োতোমার কাস্টমার যেমন চাইছে সেটা বুঝে তোমার দক্ষতাকে কাজে লাগানো এই হলো অনলাইন ব্যাবসার আসল দিক

 বহু মানুষ লকডাউন এর ফলে তাদের কাজ হারিয়েছেন আবার অনেকে চাইছেন তাদের কাজের পাশাপাশি যদি ছোট খাটো কেন ব্যবসা করা যায় আবার আপাতত ভাবে যারা কাজের সন্ধানে ঘুরছেন, তারাও চাইছেন বাড়িতে বসে কিভাবে কোনো ব্যবসা করে টাকা রোজগার করা যায় এবার একজনের পক্ষে তো সব ব্যবসা করা সম্ভব নয় তাই এখানে এমন একটা ব্যাবসার কথা আলোচনা করবো যেটা অনেকের কাছেই বেশ ইন্টারেস্টিং মনে হতে পারে বেশ এবার তাহলে তোমার পালা

আমরা প্রত্যেকেই খেতে ভালোবাসি  আর যাদের কাছে খাওয়া টা একটা বিলাসিতা তারা অনেক রকম রান্না করে খেতে খাওয়াতেও ভালোবাসে  তবে এখানে আমরা স্নাক্স ব্যাবসা নিয়ে আলোচনা করবো শুধুমাত্র বিস্কুট নয় তার সাথে হরেকরকম চানাচুর, কাঠিভাজা, নিমকি, নোনতা ফ্রাই, ছোলা  বাদাম ভাজা, অনেক কিছুই আছে আর এই লিস্টে চিপসের অবদান বাদ দি কি করে? আমরা যখন রাস্তায় বেরোই আর কিছু খাওয়ার কথা ভাবি তখনই এই সব টুকটাক খাবারের কথাই আমাদের মাথায় আসে যেহুতু বিশ্বব্যাপী বাজারে এই স্নাক্স জাতীয় খাবারের বেশ চাহিদা তাই এই ব্যাবসায় লাভ বেশ ভালো হয়তবে এক একটা জিনিস একটা একটা জায়গায় ভিন্ন ভিন্ন নাম বেশ প্রচলিত  কোথাও ঘুরতে গেলে আমরা এই স্নাঙ্কস জাতীয় খবর সন্ধান করি কারণ এগুলো প্যাকেটে থাকে, বেশ কিছু  দিন ভালো থাকে এবং শরীরেরও তেমন কোনো ক্ষতি হয় না ব্যাগ থেকে বের করে খেয়ে নিলেই হলো আর বাচ্চাদের এই খাবারগুলির উপর যে ভালোবাসা তাতো বলাই বাহুল্য তবে শুধুমাত্র ছোটরাই বা বলি কেনো বড়োরাও অনেক সময় কম যান না  

 

অনলাইন স্নাক্স ব্যাবসা কেন একটা অন্যতম আইডিয়া

খুব সহজে অনলাইনে বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে একটা বৃহত্তর শ্রোতার কাছে পাওয়া যায় আর সেটআপ খরচও কম অনলাইন ব্যবসার জন্যে কোনো দোকান সাজানোর দরকার হয় না আর তার জন্যে যে খরচ সেটাও বেঁচে যায় এখনকার দিনে অনলাইন সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট গুলো অনলাইন মার্কেটিঙের পথকে অনেক সহজ করে তুলেছে চেনাশোনা মানুষকে নাগালের মধ্যে আনতে সাহায্য করে এই সাইটগুলি তুমি তোমার জায়গায় থেকে হয়তো ততটা প্রচার করতে পারবে না  সেইগুলি এই অনলাইনের মাধ্যমে বেশ সুবিদা জনক 

 তোমাকে কি কি করতে হবে- 

প্রথমত যদি তোমার নিজস্ব কোম্পানি হয় তাহলে তোমার প্রোডাক্টের একটা ওয়েবসাইট তৈরী করতে পারো  অফলাইন ব্যবসাকে অনলাইনে ট্র্যান্সফার করার এটাই মাইন্ ধাপ বলা যেতে পারে বা তুমি যে প্রডাক্ট গুলো বিক্রি করতে চাও সেগুলোকে এই ওয়েবসাইট ডিসাইন করে সাজাও  তাতে সব মানুষ দেখতে পাবে , তোমার জনপ্রিয়তাও উত্তরোত্তর বাড়বে  হোয়াটসাপের বিজনেস আপ টিও তোমার কাজে লাগাতে পারো 

যে কোনো অনলাইন বাসাতে বিজ্ঞাপন একটু গুরুত্বপূর্ণ দিক  যেটার সাহায্যে সবার কাছে  যাওয়া যায়, সবাই ব্যাপারটার মাধ্যমে জানতে পারে  প্রতিটি জিনিসের দাম তোমাকে সঠিক ভাবে দিতে হবে যাতে মানুষের না মনে হয় এটার দাম বেশি  স্নাক্স প্যাকেজিং প্যাকেটিং একটা অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার কারণ বিস্কুট বা চানাচুর নরম হয়ে গেলে বা মিইয়ে গেলে তা খেতে আর ভালো লাগে না  যদি কোনো কারণে একবার এরকম হয় তাহলে এটা কোনো ব্যাপার নয়  কিন্তু যখনই  সেটা পরপর হতে থাকবে অনেকেই তোমার থেকে জিনিস কিনতে পছন্দ করবে না   

এরপর বলি টেস্টের কথা  মুখরোচক জিনিসে টেস্টও মানুষের আকর্ষণের অন্যতম চাহিদার দিক একরকম জিনিস মানুষ বহুদিন পছন্দ করবে না তাই শেপ এক রেখে বা চেঞ্জ করে ভিন্ন ভিন্ন রকম টেস্টের অর্র্যাঞ্জমেন্ট তোমাকে করতে হবে যেটা যখন ডেমান্ড বেশি হবে সেটার সাপ্লাই তোমাকে ঠিক ভাবে দিতে হবে 

যদি  ছোট আকারে প্রথমে শুরু করতে চাও তাহলে এক জন সহকারী নিতে পারো আস্তে আস্তে যখন তোমার ব্যবসা বাড়বে তখন তোমার কর্মচারীর সংখ্যা আস্তে আস্তে বৃদ্ধি পাবে প্যাকেজিং এর সময়  তোমার ব্র্যান্ড এবং ব্যবসা সম্পর্কে এডভারটিসিমেন্ট দিতে হবে  এতে যে কোনো জিনিসের ভলিউম বৃদ্ধি পায়ে আবার বিজ্ঞাপনের ব্যাপারটাও হয় কাস্টমাইজড প্যাকেজিং এখন খুবই আকর্ষণীয় বিষয় অনেকসময় প্যাকেজিং উপকরণগুলি একেবারে বায়োডেগ্রেডেবল ধরণেরও হয়এছাড়া ব্যাবসার আরেকটি দিক হলো ঠিকসময়ে অর্ডার সাপ্লাই করাযেহেতু পুরো ২৪ ঘন্টা তোমার বিজনেস  তোমার কাস্টমারদের জন্য খোলা আছে যে কোনো সময় মানুষ তাদের প্রয়োজন মতো অর্ডার দিতে পারবেএতে ব্যবসা এবং লাভ অনেক গুনে বেড়ে যাওয়ার সুযোগ রয়েছেতুমি তোমার ঘরে বসে পুরো দেশ এবং অন্য দেশের লোকেদের বা গ্রাহকদের টার্গেট করে পুরো দেশে তোমার ব্যবসা চালাতে পারবে

দুইভাবে তুমি আপনার জিনিসগুলি বিক্রি করতে পারো   একদিকে যেমন তোমার নিজস্ব ওয়েবসাইট তৈরি করে সেখান থেকেই যাবতীয় পণ্য বিক্রি করতে পারবে তেমনি অনলাইন মার্কেটপ্লেস থেকেও এই ব্যবসা খুব সহজেই চালানো যায়  

আপনি যে কোম্পানিগুলোর সাহায্যে আপনার প্রোডাক্ট বিক্রয় করতে চান সেখানে আপনার একাউন্ট তৈরী করুন এর জন্যে আপনার ব্যাবসার প্রকারভেদ এবং তার কিছু বিবরণ দিতে হবে আর একাউন্ট টি ওপেন করার সময় আপনার রেজিস্ট্রেশন নম্বর , প্যান নম্বর, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য ইত্যাদি দিতে হবে  অনেক কোম্পানি তোমার ঠিকানার প্রমাণপত্রও দেখতে পারে  তবে সব তথ্যের প্রমাণপত্রগুলি স্ক্যান করে সেগুলো ঠিক ভাবে পাঠিয়ে দিলে তোমার একাউন্ট খুব তাড়াতাড়ি প্রস্তুত হয়ে যাবে 

এরপরের প্রসেস গুলো তোমাকে ভাবতে হবে না প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ এসব সাইট দেখে সেখান থেকে জিনিস ক্রয় করে এই ওয়েব সাইট তাই তোমাকে সাহায্য করবে অসংখ্যা ক্রেতার কাছে তোমাকে পৌঁছে  দিতে  

এইসব সাইট গুলো নতুন ছোট ব্যাবসায়ীদের অনেক সময় অফার দেয়  তোমাকে টাকা জোগাড় করার জন্যে কোথাও যেতে হবে নাতোমার  নির্দিষ্ট একাউন্টে টাকা ঢুকে যাবে এই সংস্থাগুলিই অনেকসময়  শিপিংয়ের দায়িত্বও নিয়ে নেয় ফলে একদিকে যেমন তোমার  টাকা বাঁচবে, অন্যদিকে শ্রমও বাঁচবে পাশাপাশিই অনেক সংস্থাই প্যাকেজিংয়ের উপাদানও সরবরাহ করে থাকে

গুণমানের ওপর বিশেষ জোর দিয়ে মানুষ এখন অনেকদূর এগোতে পারে ইউটিউব তোমাকে তোমার কাজে সাহায্য করতে পারে  একটা চ্যানেল তৈরী করে সেখানে তোমার কোম্পানি নাম সহ কি কি প্রোডাক্ট তুমি বিক্রি করো সেগুলো জানাতে পারো  

Related Posts

None

হোয়াটসঅ্যাপ বিপণন


None

জিএসটি এফেক্ট কিরণ স্টোর


None

হাসান নিচ্ সাধারণ দোকানে জন্য কোড


None

মুদি দোকান


None

কিরানার দোকান


None

ফল এবং সবজি দোকান


None

বেকারি ব্যবসা


None

হস্তশিল্প ব্যবসা


None

অটোমোবাইল আনুষাঙ্গিক