written by | October 11, 2021

পেইন্টিং ব্যবসা

কিভাবে বাড়ি রং করার ব্যবসা শুরু করা যায়

একজন বাড়ি রং করার ব্যবসায়ীর কাছে কাজের ক্ষেত্রটি অনেকট বড় । তাকে বিভিন্ন রকমের কাজের দায়িত্ব অনেক দক্ষতার সাথে পালন করতে হয়। যেমন, কাজটা করতে কত টাকা খরচ হবে তার হিসেব করা, সময়সীমা ধার্য করা, চুক্তি তৈরি করা, নিজের ব্যবসার বিজ্ঞাপনের ব্যবস্থা করা, গ্রাহক পরিষেবার দিকে লক্ষ্য রাখা,ইত্যাদি। চুক্তির ভিত্তিতে তাদের নিজেদের অন্যান্য দ্রব্যাদি এবং রংও পচ্ছন্দ করতে হতে পারে। ব্যবসার পরিধি অনুযায়ী স্থায়ী কর্মী নিয়োগ করা যেতে পারে অথবা ঠিকাদারের সাথেও যোগাযোগ করা যেতে পারে।

এবার দেখে নেওয়া যাক কিভাবে এই ব্যবসা শুরু করা যায় আর আপনার জন্য তা উপযুক্ত কিনা।

নীচের ৯ টি সহজ ধাপে বাড়ি রং করার ব্যবসা শুরু করুন 

আপনি যখন একটি সংস্থান খুঁজে পেয়েছেন যে কি ব্যবসা করবেন, তাহলে সময় নষ্ট না করে দেখে নেওয়া যাক কীভাবে ব্যবসা শুরু করবেন। ব্যবসা শুরু সংক্রান্ত সমস্ত কিছু আমরা আপনার সামনে তুলে ধরছি। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবসাকে সুন্দর ভাবে গড়ে তুলতে পারবেন এবং আইনগত নিবন্ধিকরন করতে পারবেন।

প্রথম ধাপঃ ব্যবসার পরিকল্পনা

একটি সফল ব্যবসার জন্য সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ দিক হল একটি স্পষ্ট পরিকল্পনা থাকা। ব্যবসাকে বড় করে তোলার পিছনে এবং ব্যবসার ক্ষেত্রে অজানা অনেক নিয়ন্ত্রকগুলিকে জানার জন্য একটি নির্দিষ্ট পরিকল্পনার ভূমিকা অনস্বীকার্য। পরিকল্পনার সময় নিম্নলিখিত কয়েকটি জিনিস খেয়াল রাখতে হবেঃ

  • ব্যবসা শুরুর জন্য কত টাকা প্রয়োজন?
  • কোন কোন ক্রেতারা আপনার লক্ষ্যে আছেন?
  • আপনি ক্রেতাদের থেকে কত টাকা চাইবেন?
  • আপনার ব্যবসার নাম কি হবে?

বাড়ি রং করার ব্যবসা শুরু করতে কি কি খরচ করবেন।

আপনি আপনার স্থানীয় প্রশাসনের কাছ থেকে জানতে পারবেন ব্যবসাকে আইনসম্মত করতে হলে কি করতে হবে এবং তার জন্য কত টাকা খরচ হবে। তবে এই ব্যবসা শুরুর জন্য খুব কম টাকাই খরচ হবে এবং নিম্নলিখিত কয়েকটি জিনিস আপনার হাতে সামনে থাকলেই হবেঃ

  • ১টা ৮-১২ ফুটের মই
  • রোলার আর রং করার কিছু ভালো তুলি
  • আসবাবপত্র এবং কার্পেট ঢাকার কাপড়
  • চটে যাওয়া রং তোলার জন্য স্ক্র্যাপার
  • দেওয়ালকে মসৃণ করার জন্য তারের ব্রাশ
  • অমসৃণ দেওয়ালকে মসৃণ করার জন্য শিরিষ কাগজ

উদ্দিষ্ট বাজার কোনটা?

আপনার তাদেরকেই লক্ষ্য করা উচিৎ যারা জানে তারা কি কাজ করাতে চায় এবং সেই কাজের জন্য পর্যাপ্ত টাকা আপনাকে দিতে পারবে।

বাড়ি রং করার ব্যবসার থেকে কীভাবে টাকা পাওয়া যায়?

কাজের পরিমাণ এবং দক্ষতার ওপর ভিত্তি করে টাকার পরিমাণ ধার্য করা হয়। যেহেতু বাড়ির বাইরের রং বিশেষ কয়েকটি ঋতুতেই হয় তাই বাড়ির ভিতরের  রং সাধারণত অফ সিজন বা শীতকালে করা হয়, যাতে এইভাবে সারাবছরই কোন না কোন কাজ হাতে থাকে।

ক্রেতাদের থেকে আপনি কত টাকা নেবেন

ক্রেতাদের থেকে আপনি কত টাকা চাইবেন তা অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে যেমন দ্রব্যাদি, পরিবহন ব্যবস্থা, রং করার জায়গার আকারের ওপর। আপনি কতটা নিখুঁত অনুমান করেছেন তার ওপর আপনার লাভের পরিমাণ নির্ভর করবে। এছাড়াও দেওয়ালে নকশা হবে কিনা বা কি ধরনের রং হবে তার ওপর নির্ভর করে।আপনি কতটা নিখুঁতভাবে সম্ভাব্য খরচের অনুমান করেছেন তার ওপর আপনার লাভের পরিমাণ নির্ভর করবে।

দ্বিতীয় ধাপঃ আইনি সত্তা গঠন করা

আইনি সত্তা গঠন করার মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবসাকে আর এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে পারেন। কেউ যদি আপনার ব্যবসার বিরুদ্ধে কোন মামলা করে আইনি সত্তা গঠন করে থাকেন তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি ব্যক্তিগতভাবে দায়বদ্ধ থাকবেন না।

তৃতীয় ধাপঃ করের নথিভুক্তকরন

পরবর্তী ধাপ হল আপনার ব্যবসাকে করের জন্য নথিভুক্তকরন করা।

চতুর্থ ধাপঃ ব্যাংক এ কারেন্ট একাউন্ট খোলা এবং ক্রেডিট কার্ড এর জন্য আবেদন করা

ব্যবসার সমস্ত লেনদেন করার জন্য কারেন্ট একাউন্ট থাকা খুবই প্রয়োজনীয়। এটা থাকার ফলে আপনার ব্যাক্তিগত টাকা এবং সম্পত্তি সুরক্ষিত থাকবে। এবং কারেন্ট একাউন্ট থাকলে ব্যবসার হিসেব নিকেশ করতে আর খাজনা দিতে অনেক সুবিধা হবে।

ব্যবসার জন্য একটা আলাদা ক্রেডিট কার্ড থাকলে সমস্ত খরচ এক জায়গায় থাকে যার ফলে পরবর্তী সময় ব্যবসার জন্য টাকা বিনিয়োগের প্রয়োজন হলে কোন রকম অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় না।

পঞ্চম ধাপঃ ব্যবসার হিসেব রক্ষণ

ব্যবসার সব খরচ এবং আয়ের উৎস সঠিকভাবে লিখে রাখলে তা ব্যবসাকে বুঝতে অনেক সাহায্য করে। এবং পরবর্তীতে তা করের হিসেব করতেও অনেক সুবিধা করে।

ষষ্ঠ ধাপঃ প্রয়োজনীয় অনুমতি এবং লাইসেন্স অর্জন করা

প্রয়োজনীয় অনুমতি এবং লাইসেন্স প্রাপ্ত করা না থাকলে ব্যবসার জন্য অনেক অসুবিধার সৃষ্টি হতে পারে এবং আপনার ব্যবসা বন্ধও হয়ে যেতে পারে।

  • স্থানীয় প্রশাসনের থেকে অনুমতি।
  • ক্রেতাদের সঙ্গে সেবা চুক্তি।
  • শ্রমিক সুরক্ষার প্রয়োজনীয়তা।

সপ্তম ধাপঃ ব্যবসার বিমাকরন 

আপনার ব্যবসাকে সঠিক ভাবে চালু রাখার জন্য যেভাবে অনুমতি এবং লাইসেন্স দরকার সেইভাবেই বীমারও প্রয়োজন। ব্যবসার বীমা আপনার ব্যবসাকে অনেক ক্ষতির থেকে রক্ষা করে। 

অষ্টম ধাপঃ নিজের ব্র্যান্ডকে সঠিকভাবে বর্ণনা করা

আপনার কোম্পানি কেমন এবং আপনার ব্যবসাকে সবাই কীভাবে গ্রহন করছে তার উপরে আপনার ব্যবসার ব্র্যান্ড নির্ভরশীল এবং এই বাজারের প্রতিযোগীদের থেকে আপনাকে তা অনেকটা এগিয়ে রাখবে।

ব্যবসার প্রচার কি করে করবেনঃ

ব্যবসার প্রচারের জন্য সবথেকে ভালো উপায় হল কোম্পানির নিজস্ব ওয়েবসাইট থাকা। এমন অনেক সাইট আছে যেখান থেকে আপনি খুব সহজে নিজের ব্যবসার ওয়েবসাইট খুলতে পারবেন।

ক্রেতাদের কীভাবে ফিরিয়ে আনা যাবেঃ

সামাজিক মাধ্যম প্রচারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ একটি অঙ্গ। আপনি আপনার ব্যবসার একটা ফেসবুক পেজ খুলে  সন্তুষ্ট ক্রেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতে পারবেন যারা আপনাকে নতুন ক্রেতাদের খোঁজ দিতে পারবে। জমিজমা সংক্রান্ত পত্রিকাতে বিজ্ঞাপন বা বিশেষ ছাড় দিয়েও ক্রেতাদের আকর্ষণ করা যেতে পারে।

নবম ধাপঃ ওয়েবে উপস্থিতি স্থাপন করা

ব্যবসা সংক্রান্ত একটা ওয়েবসাইট ক্রেতাদেরকে আপনার ব্যবসা সম্পর্কে জানতে অনেক সাহায্য করে। সামাজিক মাধ্যমের মধ্যে দিয়ে আপনি নতুন অনেক ক্রেতাদেরকেও আকৃষ্ট করতে পারবেন।

এই ব্যবসা কি আপনার জন্য উপযুক্ত?

যাদের বাড়িকে সাজিয়ে তোলার ইচ্ছে থাকে এবং দৈহিক পরিশ্রম করার ক্ষমতা আছে তাদের জন্য এই ব্যবসা উপযুক্ত। বাড়ির পুরনো সত্তাকে ধরে রেখে এক নতুন রূপ দেওয়া মূল্যবান এক কাজ।

একজন রং ব্যবসায়ীর একটা দিন সাধারণত কীভাবে কাটে?

একজন রং ব্যবসায়ীর দিন কেমন কাটবে তা অনেক কিছুর ওপর নির্ভর করে যদিও নিচে বেশ কিছু সাধারণ দৈনন্দিন কাজের উল্লেখ করা হলো

  •  ব্যবসার প্রচার
  • সম্ভাব্য ক্রেতাদের সাথে সাক্ষাৎ 
  • সম্ভাব্য খরচের অনুমান দেওয়া এবং চুক্তি করা
  • ধোয়া এবং পুরনো রং চেঁছে রং এর প্রস্তুতি করা
  • জানলা এবং আসবাবপত্র ঢাকা
  • রং করা
  • যন্ত্রপাতি পরিষ্কার রাখা

রং এর ব্যবসায় সাফল্য আনার জন্য কি কি দক্ষতা এবং অভিজ্ঞতার দরকার

যেকোনো ব্যবসার মতোই এইখানেও কিছু প্রাথমিক দক্ষতার প্রয়োজন যেমন ক্রেতাদের সাথে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে ভালো কথোপকথনের ক্ষমতা। গণিতের  দক্ষতা (আবশ্যিক না হলেও যতটা থাকবে তা আপনার জন্য উপকারী), সৃজনশীল চিন্তার দক্ষতা।

বাড়ি রং এর ব্যবসায় সাফল্যের সম্ভাবনা কতটা?

সঠিক ব্যবসায়িক পরিকল্পনা এবং ধারাবাহিকভাবে সন্তুষ্ট ক্রেতা এই ব্যবসায় এমন সাফল্য নিয়ে আসতে পারে যে অদূর ভবিষ্যতে নতুন ব্যবসায়ীদের শাখা খো্লার প্রস্তাবও দেওয়া যেতে পারে।

Related Posts

None

হোয়াটসঅ্যাপ বিপণন


None

জিএসটি এফেক্ট কিরণ স্টোর


None

হাসান নিচ্ সাধারণ দোকানে জন্য কোড


None

মুদি দোকান


None

কিরানার দোকান


None

ফল এবং সবজি দোকান


None

বেকারি ব্যবসা


None

হস্তশিল্প ব্যবসা


None

অটোমোবাইল আনুষাঙ্গিক