written by | October 11, 2021

পার্ট টাইম ব্যবসায়িক ধারণা

কিছু পার্টটাইম ব্যবসার তালিকা

আমরা সকলেই জানি যে বর্তমানে বাজারের যা পরিস্থিতি এবং যেভাবে প্রতিদিন আমাদের নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম ক্রমশ উর্ধ্বমুখি হচ্ছে তাতে মধ্যবিত্ত পরিবাবের মানুষ পড়েছেন খুবই সমস্যায়। আরও চিন্তার বিষয় এই যে, যে হারে জিনিস্পত্রের দাম বাড়ছে, সেই হার কিন্তু তাদের মাসিক মাহিনা বাড়ছে না। আর এতেই মধ্যবিত্ত মানুষজনের কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়ছে। তাঁরা বাধ্য হচ্ছেন অফিসের সময়ে বাইরে অন্য কিছু করার এবং কিছু অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করার। কিন্তু এও ঠিক, যদি আপনি একাগ্রতার সাথে পার্টটাইম কোনো কাজ করেন তবে আপনি আপনার মাসিক মাহিনার থেকে বেশী অর্থ উপার্যন করতে পারবেন।

সারা সপ্তাহের অফিসের কাজের পরেও শুধু মাত্র শনি আর রবিবার কিছুক্ষন সময় ব্যয় করে আপনি একটি সফল ও লাভজনক পার্টটাইম ব্যবসা শুরু করতে পারেন। আর এর জন্য আপনাকে কোনোরকম ঝুঁকি নিতে হবে না। এমনকি আপনি যদি কোনো ফুলটাইম ব্যবসা শুরু করতে চান, তবে তার আগে বাজারে অবস্থা ও চাহিদা জানতেও আপনি সেই ব্যবসাটিকে পার্টটাইম হিসাবে ছালু করতে পারেন। আপনি মনে করতে পারেন যে কোনও ব্যবসা শুরু করার জন্য আপনার কাছে জ্ঞান বা দক্ষতা নেই। তবে অনেক ব্যবসার ক্ষেত্রেই খুবই সামান্য দক্ষতার প্রয়োজন হয়। আপনি এইরকম একটি ব্যবসা বেছে নিতে পারেন। শুরু করার জন্য, আপনার শুধু প্রয়োজন একটু সময়, একটু আত্মবিশ্বাস, সাহসিকতার আর ব্যবসা সম্পর্কে কিছুটা জ্ঞান। আসুন দেখে নি খুব সহজেই পার্টটাইম ব্যবসা হিসাবে আপনি কী কী বিকল্প পেতে পারেন।

হোমমেড চকলেট

আপনি নিজের চকলেট তৈরির ব্যবসা শুরু করতে পারেন। একটি চকলেট তৈরির ব্যবসা হ’ল কম বিনিয়োগের ব্যবসা। চকলেট তৈরি করতে আপনার কাঁচামাল যেমন ক্রিম, চিনি, ছাঁচ এবং কিছু আলংকারিক আইটেমের প্রয়োজন। আপনার চকলেট বিক্রি করার জন্য আপনাকে শপিংমল বা দোকানগুলির সাথে জড়িত থাকতে হবে অথবা সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনি আপনার চকলেট বিক্রি করতে পারেন। এটিই এখন বর্তমা ট্রেন্ড।

ব্রেকফাস্ট কাউন্টার

আপনি যদি ব্রেকফাস্ট তৈরিতে পারদর্শী হন তবে আপনি একটি হোম বেসড ব্রেকফাস্ট পরিবেশনের ব্যবসা শুরু করতে পারেন। অনেক লোকেই ভাল নাস্তা পরিবেশনের জায়গা খোঁজেন। এই ব্যবসার জন্য আপনার শুধু একটি আলাদা ঘরের প্রয়োজন যেখান থেকে আপনি আপনার তৈরী ব্রেকফাস্ট পরিবেশন করবেন।

ক্যাটারিং-এর ব্যবসা

ফুড কেটারিং একটি বড় ব্যবসা তবে পার্ট টাইমে শুরু করা যেতে পারে। এই ব্যবসায় বিনিয়োগ প্রয়োজন। এই ব্যবসাটি ভাল খাবারের মান এবং পরিচালনা দক্ষতারও দাবি করে। এই ব্যবসায় নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য আপনাকে একটু বেশী সময় দিতে হবে।

অনলাইন ব্লগিং

ব্লগিং হল সেরা অনলাইন পার্টটাইম ব্যবসাগুলির মধ্যে একটি। এটি প্রমাণিত সত্য যে কেউ ব্লগিং থেকে প্রচুর অর্থোপার্জন করা যেতে পারে। এমন অনেক ব্লগার রয়েছেন যারা ইতিমধ্যে ব্লগিং করেই তাঁদের জীবনযাপন করছেন। তবে ব্লগিং থেকে অর্থোপার্জন করতে কিন্ত সময় লাগে। যথেষ্ট পরিমাণ ধৈর্য এবং একাগ্রতাই কাম্য।

অনলাইন ব্যবসা

আরও একটি পার্টটাইম ব্যবসা হল নিজের অনলাইন ব্যবসা খোলা। নিজের তৈরী দ্রব্যাদি আপনি অনলাইন স্টোরের মাধ্যমে বিক্রি করতে পারেন অথবা, পাইকিরি দামে বাজার থেকে দ্রব্য কিনে আপনি আপনার অনলাইন স্টোরে বিক্রি করতে পারেন। তবে অনলাইন স্টোর শুরু করার আগে আপনি ফ্লিপকার্ট, স্ন্যাপডিল, ফেসবুক বা হোয়াটসঅ্যাপে ইত্যাদির মডেলগুলি একবার দেখে নিতে পারেন।

সোশ্যাল মিডিয়া এক্সপার্ট

আপনি যদি সোশ্যাল মিডিয়া ম্যানেজমেন্টে ভাল হয়ে থাকেন তবে আপনি সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ হওয়ার পরিকল্পনা করতে পারেন। একটি সোশ্যাল মিডিয়া বিশেষজ্ঞ হিসাবে আপনাকে ফেসবুক, টুইটার এবং অন্য ব্র্যান্ডের অন্যান্য সোশ্যাল পৃষ্ঠা পরিচালনা করতে হবে, লাইক এবং শেয়ার বাড়ানোর জন্য আপনি দায়বদ্ধ থাকবেন। আপনি এর জন্য নির্দিষ্ট অর্থ পরিমাণ চার্জ করতে পারেন। এই ব্যবসা পার্টটাইম হিসাবে শুরু করা যেতে পারে।

কম্পিউটার সারাই

আপনি কম্পিউটার মেরামতের ক্ষেত্রে পারদর্শী হয়ে থাকলে আপনি নিজের পার্টটাইম কম্পিউটার মেরামত এবং কম্পিউটার এ এম সি-এর ব্যবসা শুরু করতে পারেন। কম্পিউটার মেরামতের ব্যবসায়ের প্রতিষ্ঠার জন্য একটু সময় প্রয়োজন। আপনি যদি ধৈর্যের সাথে এই ব্যবসা চালাতে পারেন, তবে একটা সময় আসবে যখন আপনি একা সমস্ত ক্লায়েন্টদের সামলাতে পারবেন না।

ফটোগ্রাফি

ফটোগ্রাফি একটি দক্ষতা। আপনি যদি ছবি তোলাতে ভাল হন এবং আপনার কাজ বাদ দিয়ে অতিরিক্ত সময় ব্যয় করতে প্রস্তুত থাকেন তবে এই ব্যবসাটি আপনার জন্য।

ইন্টিরিয়র ডিজাইন

পার্টটাইম ব্যবসায়িক ধারণাগুলির তালিকায় ইন্টেরিয়র ডিজাইনার পরবর্তী স্থানে রয়েছে। আপনি একটি ইন্টিরিয়র ডিজাইনার হয়ে উঠতে পারেন এবং প্রচুর অর্থ উপার্জন করতে পারেন। আপনার যোগাযোগ, পরিচালনা এবং পরিকল্পনার দক্ষতায় সৃজনশীল এবং পারদর্শী হওয়া দরকার।

বীমা প্রতিষ্ঠান

বীমা সংস্থা হ’ল স্বল্প ঝুঁকিপূর্ণ একটি পার্টটাইম ব্যবসায়িক ধারণা। একজন বীমা এজেন্ট হিসাবে আপনার প্রয়োজন যেমন ভাল যোগাযোগ দক্ষতা, আহ্বান শক্তি এবং জ্ঞান অর্জন করা। বীমা এজেন্টের আয় পলিসি বিক্রয়, পরিমাণ এবং বীমা পলিসির অর্থের পরিমানের উপর নির্ভর করে।

ফ্রিল্যান্স রাইটার

আপনি যদি লেখায় পারদর্শী হন তবে আপনি খুব সহজেই একজন ফ্রিল্যান্স লেখক বা রাইটার হয়ে উঠতে পারেন। বহু ছোট, বড় কোম্পানি তাদের কাজের জন্য ফ্রিল্যান্স লেখক সবসময় অনলাইনে খোঁজেন। আপনি যদি সঠিকভাবে বিড করতে পারেন, তবে একজন পেশাদার ফ্রিল্যান্স লেখক হিসেবে যথেষ্ট সুনাম করবেন।

বাগান পরিষেবা

বাগান পরিষেবা একটি ফুল টাইম ব্যবসা তবে প্রাথমিক পর্যায়ে আপনি এই ব্যবসাটি পার্টটাইম হিসেবে শুরু করতে পারেন। এই ব্যবসায় আপনাকে সংস্থাগুলি বা কোনো ব্যক্তির বাগান পরিচর্চা করতে হবে। আপনি ল্যান্ডস্কেপ তৈরি এবং রক্ষণাবেক্ষণের জন্য অতিরিক্ত চার্জ নিতে পারেন।

কম্পিউটার প্রশিক্ষণ

কম্পিউটার প্রশিক্ষণ শুরু করা একটি খুব ভাল পার্টটাইম ব্যবসায়ের ধারণা। বর্তমান বিশ্বে প্রত্যেককে কম্পিউটার সম্পর্কে জানতে হবে এবং তারা এতে অর্থ ব্যয় করতে প্রস্তুত। কম্পিউটার প্রশিক্ষক হওয়ার জন্য আপনার কম্পিউটার সম্পর্কে প্রাথমিক জ্ঞান থাকা প্রয়োজন। আপনি যদি ভালোভাবে প্রশিক্ষণ প্রদান করতে পারেন তবে আপনার যথেষ্ট নামডাক হবে।

মরসুমী পন্যের ব্যবসা

মরসুমী পন্যের ব্যবসাকেও আপনি পার্টটাইম হিসাবে শুরু করতে পারেন। আমাদের ভারতবর্ষ উৎসবের দেশ। সারা বছর কোনো না কোনো উৎসব লেগেই থাকে। আর এই প্রতিটি উৎসবেরই কিছু নিজস্ব পণ্য আছে। এবং সকলেরই এই মরসুমী পণ্যের প্রয়োজন হয়। তাই এই ব্যবসা খুবই রমরমিয়ে চলবে।

খেলার কোচ

পেশাদার ক্রীড়া প্রশিক্ষণ একটি প্রতিযোগিতামূলক ব্যবসা। ক্রীড়া প্রশিক্ষক হওয়ার আগে আপনাকে বিশেষ প্রশিক্ষণ নিতে হবে। এটি একটি ক্রীড়া কোচ হওয়ার জন্য একাগ্রতা এবং প্রতিশ্রুতি প্রয়োজন।

বিউটি পার্লার

বিউটি পার্লারটি মহিলাদের জন্য অন্যতম একটি পার্টটাইম ব্যবসার ধারণা। এই ব্যবসাটি শুরু করার জন্য, আপনাকে বিশেষ প্রশিক্ষণ নেওয়া প্রয়োজন। একটি সফল বিউটি পার্লার সারা মাসে কয়েক হাজার গ্রাহকদের পরিষেবা দিতে সক্ষম। এই ব্যবসা করে আপনি সারা মাসে কয়েক হাজার টাকা অতিরিক্ত রোজগার করতে পারবেন।

এই প্রবন্ধ থেকে আমরা জানতা পারলাম যে নিজেদের রোজকার চাকুরীর সমায়ের বাইরে উপরিউল্লিখিত যে কোন একটি ব্যবসাকে আপনি আপনার পার্টটাইম ব্যবসা হিসাবে নির্বাচন করতে পারে। তবে এটা অবশ্যই দেখে নেবেন যে সি বিষয়ে আপনার পর্যাপ্ত জ্ঞান আছে কিনা। যদি না থাকে তবে তা সঠিক প্রশিক্ষণ ও পরিচর্চার মাধ্যমে আপনাকে পারদর্শী হয়ে উঠতে হবে। বর্তমানে অনেক তরুণ তরুণী এবং চাকুরীজীবী মানুষ পার্টটাইম ব্যবসার সন্ধান করছেন। তারা হয় তাদের  চাকরি নিয়ে বিরক্ত বা তারা অতিরিক্ত অর্থ উপার্জন করতে চায়। আপনি যদি তাদের মধ্যে একজন হন তবে আর দেরী নাকে করে আপনার যোগ্যতা ও পারদর্শীতার উপর নির্ভর করে যেকোনো একটি ব্যবসা বেছে নিন।

Related Posts

None

হোয়াটসঅ্যাপ বিপণন


None

জিএসটি এফেক্ট কিরণ স্টোর


None

হাসান নিচ্ সাধারণ দোকানে জন্য কোড


None

মুদি দোকান


None

কিরানার দোকান


None

ফল এবং সবজি দোকান


None

বেকারি ব্যবসা


None

হস্তশিল্প ব্যবসা


None

অটোমোবাইল আনুষাঙ্গিক